Medhashree Scholarship – এবার সরকারি তরফে স্টুডেন্টরা পাবে ৮০০ টাকা! সরাসরি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

আলিপুরদুয়ারের হাসিমারায় এক প্রশাসনিক সভায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেধাশ্রী বৃত্তির (Medhashree Scholarship) কথা ঘাষণা করেন। বাংলার সমস্ত ওবিসি গোষ্ঠীর ছাত্র-ছাত্রীরা পাবে এই নতুন বৃত্তির সুবিধা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের জন্য “মেধাশ্রী” নামক একটি  প্রকল্প (Medhashree Scholarship) ঘোষনা করেছেন।

উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে তিনি বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের অনগ্রসর জাতি এবং সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি বন্ধ করার পদক্ষেপের সমালোচনা করেন ,এবং সেই সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের সাহাযার্থে তিনি সরকারি তরফে এই নতুন বৃত্তির ঘোষণা করেন। আলিপুরদুয়ারের হাসিমারায় এই সভা থেকেই তিনি এই প্রকল্পের (Medhashree Scholarship) কথা জানান।

এই মেধাশ্রী স্কলারশিপে বা Medhashree Scholarship কত টাকা পাবে ছাত্রছাত্রীরা?

কোভিড-১৯-এর পর আর্থিক প্রতিকূলতার অনেক মেধাবী ছাত্রছাত্রীরাও স্কুলছুট হয়েছে। সেই সমস্ত অনগ্রসর শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের সাহয্য করবে এই মেধাশ্রী প্রকল্প। তাঁরা ৮০০ টাকা করে পাবেন সরকারি তরফে। বর্তমান সরকারের বিভিন্ন শিক্ষামূলক প্রকল্পই দেশ এবং বিদেশে বহুল প্রশংসিত। আর সেই প্রকল্পের তালিকায় নব সংযোজন ‘মেধাশ্রী বৃত্তির বা Medhashree Scholarship.

কিভাবে এই Medhashree Scholarship জন্য আবেদন করা যাবে?

এই স্কলারশিপের জন্য কোথা থেকে কিভাবে আবেদন করা যাবে, সাধারণ মানুষের কাছে সেটি একটি বড় প্রশ্ন। সর্বসাধারণের সুবিধার্থে জানিয়ে রাখা ভালো, এই নিয়ে এখনো মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে কোন নোটিশ জারি করা হয়নি। বা বলে দেয়া হয়নি কোথা থেকে কিভাবে এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন আপনারা ।

কবে থেকে আবেদন করা যাবে ?

মুখ্যমন্ত্রী এই নতুন স্কলারশিপ (Medhashree Scholarship) এর কথা জানালেও, কবে থেকে আবেদন করা যাবে অথবা কবে থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের সুবিধা পাবে, তা নিয়ে কিছু বলেননি তিনি। তবে মনে করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই এ বিষয়ে নোটিশ বেরোবে।

এই Medhashree Scholarship আবেদন করার জন্য কি কি যোগ্যতা লাগবে?

এখনো অব্দি জানা গেছে এই স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য আপনার ওবিসি হওয়া আবশ্যক। এছাড়া আপনাকে একজন পড়ুয়া হতে হবে অর্থাৎ কোন স্কুল বা কলেজে পড়াশোনা করতে হবে। তবে একথাও ঠিক এখনো স্পেসিফিক ভাবে বলা হয়নি কোন শ্রেণীতে অথবা ঠিক কোন সময় এই স্কলারশিপ পাবে ছাত্র-ছাত্রীরা।

তবে এই নতুন স্কলারশিপ এর ঘোষণা শুনে খুশি ওবিসি শ্রেণীর মানুষজন। মনে করা হচ্ছে যে, খুব শীঘ্রই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ সংক্রান্ত সমস্ত কিছুর প্রশ্নের উত্তর দিয়ে একটি নোটিশ বের করবেন, এবং খুব শীঘ্রই এই স্কলারশিপ দেয়া চালু হবে এবং বহু মানুষ এ থেকে উপকৃত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *