Laxmi Bhandar Apply 2024 – শুরু হলো লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে আবেদন! কবে, কিভাবে আবেদন করবেন? জানুন বিস্তারিত।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

Laxmi Bhandar Apply 2024 – পশ্চিমবঙ্গের বুকে সারা জাগানো প্রকল্পগুলির মধ্যে অন্যতম হলো লক্ষীর ভান্ডার। প্রতি মাসে বাংলার মহিলাদের একাউন্টে সরাসরি ১০০০/- টাকা থেকে ১২০০/- টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। এই টাকা বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের মা বোনদের হাত খরচের টাকা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকে আবার সংসার খরচ পর্যন্ত চালান। চলতি বছরের জন্য লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন শুরু হয়ে গিয়েছে। এই প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন, সময়সীমা থেকে শুরু করে বয়স সীমা-সবটা জানতে পড়ুন এই প্রতিবেদন।

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ২০২৪Laxmi Bhandar Apply 2024

বাংলার মহিলাদের উন্নয়নের স্বার্থে চালু হওয়া জনপ্রিয় প্রকল্প হলো লক্ষীর ভান্ডার। প্রথমে জেনারেল কাস্ট এর মহিলারা ৫০০/- টাকা এবং সংরক্ষিত শ্রেণীর মহিলারা পেতেন ১০০০/- টাকা করে করে প্রতিমাসে। তবে এখন এই পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সাধারণ শ্রেণীর মহিলারা ১০০০/- টাকা ও সংরক্ষিত শ্রেণীর মহিলারা ১২০০/- টাকা করে পাচ্ছেন প্রত্যেক মাসে। আবারো শুরু হতে চলেছে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের ফর্ম ফিলাপ। আজ লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হবে এই প্রতিবেদনে।

লক্ষীর ভাণ্ডারে কারা আবেদন করতে পারবেন?

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের চালু করা এই প্রকল্পের শুধুমাত্র এই রাজ্যের মহিলারা আবেদন করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে আবেদনকারী মহিলাদের। বয়স হতে হবে ২৫ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। সরকারি কাজের সঙ্গে যুক্ত মহিলারা এই প্রকল্পের আবেদন করতে পারবেন না। আবেদনকারী মহিলার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকা বাঞ্ছনীয়।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র (Laxmi Bhandar Apply 2024)

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন করতে হলে আধার কার্ড, স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, প্রার্থীর ইনকাম সার্টিফিকেট ও রেসিডেন্সিয়াল সার্টিফিকেট, SC/OBC কার্ড, পাসপোর্ট সাইজ ছবি, ব্যাংকের বই ও মোবাইল নম্বর।

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন ২০২৪

অনলাইন কিংবা অফলাইন দুইভাবেই লোকের ভান্ডার প্রকল্প আবেদন করতে পারবেন। কিভাবে আবেদন করবেন জেনে নিন।

লক্ষ্মী ভান্ডার প্রকল্পে অনলাইনে আবেদন

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন করতে হলে সবার প্রথমে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ফর্ম ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিতে হবে। তারপর সেটি মনোযোগ সহকারে ফিলাপ করে প্রয়োজনীয় নথিপত্র যুক্ত করে, নিকটবর্তী দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে গিয়ে জমা দিন। আবেদন গ্রাহ্য হলে প্রতি মাসে আপনার একাউন্টে আসবে টাকা।

বিনামূল্যে অতিরিক্ত রেশন দেওয়া হবে! সম্পূর্ণ সুখবরটি জানুন এখনই

লক্ষ্মী ভান্ডার প্রকল্পে অনলাইন আবেদন

লক্ষ্মী মন্ত্র প্রকল্পে অনলাইনে আবেদন করতে হলে নিজস্ব জেলার নিকটবর্তী সরকারের ক্যাম্পে গিয়ে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের ফর্ম নিন। এরপর তা যত্ন সহকারে পূরণ করে সমস্ত ডকুমেন্টস সহ ক্যাম্পে জমা করুন। আপনার আবেদন খতিয়ে দেখে নির্দিষ্ট সময়ে টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে আপনার একাউন্টে।

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন শুরু

প্রতিবছরের মতো এই বছরও দুয়ারে সরকারের শিবির থেকে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন মা-বোনেরা। শোনা যাচ্ছে, জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে এই প্রকল্পে আবেদন শুরু হতে পারে। তাই লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে নতুন করে আবেদন করতে চাইলে কিংবা কোন কিছু সমস্যার সমাধান করার থাকলে অবশ্যই দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে গিয়ে আধিকারিকদের কাছে সাহায্য গ্রহণ করুন।

স্কুলে এবার ফ্রি WIFI ইন্টারনেট পরিষেবা! কোন কাজে ব্যবহার হবে এই ইন্টারনেট?